এখন পর্যন্ত এ খবরটি সর্বমোট দেখা হয়েছে 79 

মাহামুদুল হাসান জিল্লুঃ
বরিশালের উজিরপুর উপজেলার সাতলা ইউনিয়নের উত্তর সাতলা গ্রামে বিশাল বিল জুড়ে ফোটে লাল শাপলা। জেলা সদর থেকে প্রায় ৬০ কিলোমিটার দূরের এ জায়গাটি ‘শাপলা বিল’ নামেই বেশি পরিচিত। চারপাশে গাঢ় সবুজের পটভূমিতে এ যেন এক লাল স্বর্গ।
শাপলার গ্রাম উজিরপুর উপজেলার সাতলা গ্রামের সর্বত্রই লাল শাপলার বিল। এছাড়া পার্শ্ববর্তী আগৈলঝড়া উপজেলার বাগধা ইউনিয়নের বাগধা ও খাজুরিয়া গ্রামেও দু’টি সুন্দর শাপলার বিল আছে।
কীভাবে যাবেন সাতলার বিলে যেতে ঢাকা থেকে লঞ্চে প্রথমে বরিশাল, সেখান থেকে অটোরিকশা ভাড়া করে যেতে হবে সাতলা। এছাড়া সড়ক পথে গৌরনদী নেমে সেখান থেকেও অটো রিকশায় যাওয়া যাবে সাতলা। শাপলার এ রাজত্ব দেখার ভালো সময় অক্টোবর এবং নভেম্বর।
যেতে হবে সকালে সাতলা বিলে ফুটন্ত শাপলার রাজত্ব দেখতে হলে জায়গাটিতে পৌঁছুতে হবে খুব সকালে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিলে ফুলের পরিমাণ কমতে থাকে। ছোট নৌকায় বিল দেখা সাতলা বিলে বেড়ানোর জন্য পাওয়া যাবে ছোট ছোট নৌকা। স্থানীয় মানুষ ভ্রমণ মৌসুমে পর্যটকদের জন্য নৌকা নিয়ে অপেক্ষায় থাকেন।

শিশুদের দুরন্তপনা সাতলার শাপলা বিলে দেখা মিলবে শিশুদের দুরন্তপনা। সকালে অনেককেই দেখা যায় বিলে শাপলা সংগ্রহ করতে। অন্নের যোগান পর্যটকদের মনোরঞ্জন ছাড়াও সাতলার বিল স্থানীয়দের অন্নেরও জোগান দেয়। তরকারী হিসেবে শাপলার জনপ্রিয়তা আছে। এছাড়া বিলে প্রচুর মাছও পাওয়া যায়।
আয়ের উৎস নিম্ন আয়ের মানুষেরা সাতলা বিলের শাপলা তুলে নিয়ে বিক্রি করেন বাজারে। এ থেকে বাড়তি আয় হয় তাঁদের। স্থানীয়দের অনেকে জীবিকার জন্য বছরের একটা বড় সময় বিলের মাছ ও শাপলার ওপর নির্ভরশীল।
বাজারে শাপলা সাতলা বিলের শাপলা যায় সাধারণত বরিশাল, ঝালকাঠী ও পিরোজপুর এলাকার বিভিন্ন হাট-বাজারে। ১৫ থেকে ২০টি শাপলার একটি আঁটি তিন থেকে পাঁচ টাকায় বিক্রি হয় এসব বাজারে।
জনপ্রিয় নতুন ভ্রমণ গন্তব্য বাংলাদেশের নতুন ভ্রমণ গন্তব্যগুলোর মধ্যে সাতলা বিল অন্যতম। মৌসুমে দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে প্রচুর পর্যটক সেখানে ছুটে যান প্রকৃতির সৌন্দর্য উপভোগ করতে।
সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার অভাব পর্যটকদের কাছে অল্প সময়ে জনপ্রিয় হয়ে ওঠা সাতলা বিলে নজর পড়েনি সরকারের। জায়গাটিতে এখনো পর্যটকদের জন্য তেমন কোনো সুযোগ-সুবিধা নেই।


মতামত জানান

Your email address will not be published. Required fields are marked *

RSS Bangla Tribune

  • বান্দরবা‌নে চামড়া নিয়ে বিপাকে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ August 2, 2020
    বান্দরবা‌নে সংগ্রহ করা চামড়া বিক্রি করতে পারছে না বি‌ভিন্ন মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ। এ‌দি‌কে সংগৃহীত চামড়ায় পচন ধ‌রে দুর্গন্ধ ছড়া‌তে শুরু ক‌রে‌ছে। এ‌তে বিপা‌কে প‌ড়ে‌ছেন তারা। র‌বিবার (২ আগস্ট) সকা‌লে বান্দরবান বালাঘ‌াটা ওছমান বিন আফফান (রা.) হেফজখানা ও এ‌তিমখানা, বান্দরবা‌নের ইসলা‌মিয়া হা‌ফে‌জিয়া... বিস্তারিত
  • ‘২৪ ঘণ্টায় ডিএনসিসির সব বর্জ্য অপসারণ করা হয়েছে’ August 2, 2020
    কোরবানির প্রথম দিনের বর্জ্য গত ২৪ ঘণ্টায় শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। সংস্থাটি বলছে, ঈদের প্রথম দিনের উৎপাদিত বর্জ্য পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে শতভাগ অপসারণ করা হয়েছে। রবিবার (২ আগস্ট) ডিএনসিসির জনসংযোগ দফতর থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সংস্থার প্রধান বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে এ তথ্য জানানো হয়। […]
  • লকডাউনের বিরুদ্ধে ২০ সহস্রাধিক জার্মানের বিক্ষোভ August 2, 2020
    জার্মানিতে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় দফার সংক্রমণ ঠেকাতে জারি করা বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে উগ্র জাতীয়তাবাদীদের নেতৃত্বে বিক্ষোভে যোগ দিয়েছেন ২০ সহস্রাধিক মানুষ। শনিবার বার্লিনের ঐতিহাসিক ব্রান্ডেনবার্গ গেইটে বিক্ষোভকারীরা অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। তবে পুলিশ তাদের কর্মসূচি পণ্ড করে দিয়েছে। মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন জানায়, অবস্থান কর্মসূচির আগে একটি বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। মিছিলে সামাজিক দূরত্ব... বিস্তারিত
  • ঈদের দিনের বর্জ্য শতভাগ অপসারণের দাবি ডিএসসিসির August 2, 2020
    ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) সবক’টি ওয়ার্ডেই কোরবানির পশুর বর্জ্য শতভাগ অপসারিত হয়েছে— এমনটাই দাবি করেছে ডিএসসিসি। রবিবার (২ আগস্ট) গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানান সংস্থার জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের। তিনি বলেন, ‘ঈদের দিনের বর্জ্য শতভাগ অপসারিত হয়েছে। আজ  (রবিবার) ঈদের দ্বিতীয় দিনের কোরবানি পশুর বর্জ্য আগামী ১২ ঘণ্টার মধ্যে অপসারিত... বিস্তারিত
  • সঠিক দাম পাচ্ছেন না মৌসুমি ব্যবসায়ীরা, মূলধন হারানোর শঙ্কা August 2, 2020
    হিলিতে চামড়া নিয়ে বেকায়দায় পড়েছেন মৌসুমি ব্যবসায়ীরা। গত বছরের তুলনায় এবার আরও কয়েক গুণ কমে চামড়ার কেনাবেচা হচ্ছে। কাঙ্ক্ষিত দাম না পেয়ে লোকসান ও মূলধন হারানোর শঙ্কায় রয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এছাড়া দাম না পেয়ে হতাশ বিভিন্ন এতিমখানা ও মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ। অপরদিকে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান থেকে বকেয়া টাকা পাননি আড়তদাররা। এবারও ন্যায্যমূল্য পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় রয়েছেন তারা। শনিবার […]
মাত্র পাওয়া: