০৫:৫১ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ১ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

এমপির বাসায় অভিযানে ২৪ ঘন্টায় ২৯০ কোটি টাকা উদ্ধার।

  • Update Time : ০৯:১৩:১৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩
  • ১৪৮ Time View

 

নগদ টাকা উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে আয়কর কর্তৃপক্ষ। আর ২৪ ঘণ্টায় সংগ্রহ হয়েছে ২৯০ কোটি টাকা। শুধু এখানেই নয়, এর পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

ভারতের তিনটি রাজ্যে নগদ পুনরুদ্ধারের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শুক্রবার থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু করেছে আয়কর কর্তৃপক্ষ। আর এটাই দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় নগদ প্রবাহ। এটি ২৯০ কোটি রুপি পৌঁছেছে।

সূত্র জানায়, উদ্ধারকৃত সব টাকা এখনও গণনা করা হয়নি। ফলে টাকার পরিমাণ বাড়তে পারে। এ ছাড়া অন্য জায়গাগুলোও তারা খুঁজে পেয়েছে। এসব স্থানে বিপুল পরিমাণ অর্থ লুকিয়ে আছে বলে তথ্য রয়েছে।

 

 

এনডিটিভি জানিয়েছে যে ট্যাক্স বিভাগ ঝাড়খণ্ড, উড়িষ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গের ওডিশা ভিত্তিক ডিস্টিলারির অফিসে অভিযান চালিয়ে অর্থ উদ্ধার করেছে।

 

নগদ উদ্ধার অভিযানে ২৪ ঘন্টায় ২৯০ বিলিয়ন লিরা পাওয়া গেছে

শপথ নেওয়ার কয়েক মিনিট পরই প্রধানমন্ত্রী তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করেন

ট্যাক্স অফিস সূত্রে জানা গেছে, এই রাজ্যের সাতটি কক্ষ ও নয়টি কক্ষ এখনও তল্লাশি করা হয়নি। এই মুদ্রাগুলি আসবাবপত্র এবং ক্যাবিনেটের মতো বিভিন্ন জিনিসপত্রে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। এছাড়াও, অন্যান্য অবস্থানের তথ্যও রয়েছে। যেখানে নগদ টাকা ও গয়না পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মদ কোম্পানি ছাড়াও ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেস সাংসদ ধীরাজ কুমার সাহুর বাড়িতেও অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় সেখান থেকে কয়েক কোটি টাকাও জব্দ করা হয়।

 

এর আগে গতকাল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সোশ্যাল মিডিয়া এক্স-এ এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লুট করা সমস্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হবে।

 

বিরোধী দলের নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশের মানুষ এই নোটের স্তুপ দেখে তারপর নেতাদের বক্তব্য শুনবে। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লুট করা প্রতিটি পয়সা ফেরত দিতে হবে। এটা মোদির আশ্বাস

 

সূত্র: এনডিটিভি

Tag :
জনপ্রিয়

সব বাবাদের প্রতি আমার শ্রদ্ধা ও ভালোবাসা

এমপির বাসায় অভিযানে ২৪ ঘন্টায় ২৯০ কোটি টাকা উদ্ধার।

Update Time : ০৯:১৩:১৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩

 

নগদ টাকা উদ্ধারে কাজ শুরু করেছে আয়কর কর্তৃপক্ষ। আর ২৪ ঘণ্টায় সংগ্রহ হয়েছে ২৯০ কোটি টাকা। শুধু এখানেই নয়, এর পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তারা। শনিবার, ৯ ডিসেম্বর ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

 

ভারতের তিনটি রাজ্যে নগদ পুনরুদ্ধারের কার্যক্রম শুরু হয়েছে। শুক্রবার থেকে এই প্রক্রিয়া শুরু করেছে আয়কর কর্তৃপক্ষ। আর এটাই দেশের ইতিহাসে সবচেয়ে বড় নগদ প্রবাহ। এটি ২৯০ কোটি রুপি পৌঁছেছে।

সূত্র জানায়, উদ্ধারকৃত সব টাকা এখনও গণনা করা হয়নি। ফলে টাকার পরিমাণ বাড়তে পারে। এ ছাড়া অন্য জায়গাগুলোও তারা খুঁজে পেয়েছে। এসব স্থানে বিপুল পরিমাণ অর্থ লুকিয়ে আছে বলে তথ্য রয়েছে।

 

 

এনডিটিভি জানিয়েছে যে ট্যাক্স বিভাগ ঝাড়খণ্ড, উড়িষ্যা এবং পশ্চিমবঙ্গের ওডিশা ভিত্তিক ডিস্টিলারির অফিসে অভিযান চালিয়ে অর্থ উদ্ধার করেছে।

 

নগদ উদ্ধার অভিযানে ২৪ ঘন্টায় ২৯০ বিলিয়ন লিরা পাওয়া গেছে

শপথ নেওয়ার কয়েক মিনিট পরই প্রধানমন্ত্রী তার নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি পূরণ করেন

ট্যাক্স অফিস সূত্রে জানা গেছে, এই রাজ্যের সাতটি কক্ষ ও নয়টি কক্ষ এখনও তল্লাশি করা হয়নি। এই মুদ্রাগুলি আসবাবপত্র এবং ক্যাবিনেটের মতো বিভিন্ন জিনিসপত্রে লুকিয়ে রাখা হয়েছিল। এছাড়াও, অন্যান্য অবস্থানের তথ্যও রয়েছে। যেখানে নগদ টাকা ও গয়না পাওয়া যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মদ কোম্পানি ছাড়াও ঝাড়খণ্ডের কংগ্রেস সাংসদ ধীরাজ কুমার সাহুর বাড়িতেও অভিযান চালানো হয়েছে। এ সময় সেখান থেকে কয়েক কোটি টাকাও জব্দ করা হয়।

 

এর আগে গতকাল ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সোশ্যাল মিডিয়া এক্স-এ এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লুট করা সমস্ত অর্থ ফেরত দেওয়া হবে।

 

বিরোধী দলের নেতাদের উদ্দেশে তিনি বলেন, দেশের মানুষ এই নোটের স্তুপ দেখে তারপর নেতাদের বক্তব্য শুনবে। সাধারণ মানুষের কাছ থেকে লুট করা প্রতিটি পয়সা ফেরত দিতে হবে। এটা মোদির আশ্বাস

 

সূত্র: এনডিটিভি