০২:৩০ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দামুড়হুদায় কিতাব আলী হত্যাকাণ্ডের ১২ ঘণ্টার মধ্যে রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার ৩

  • Update Time : ০৪:২১:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ এপ্রিল ২০২৩
  • ৪১ Time View

শিমুল রেজাঃ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় কিতাব আলীকে (৪৮) কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার তিনজনই হত্যা সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত। তাদের দু’জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আসামিরা হলেন দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের স্কুলপাড়ার শাহাবুদ্দিন শাবুর ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৮), একই পাড়ার রমজান আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৪) ও লোকনাথপুর মাঝেরপাড়ার মিলন হোসেনের ছেলে হাফিজুর (২০)।

পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, ‘হত্যা মামলার মাত্র ১২ ঘণ্টার মধ্যে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘটনার সাথে সরাসরি সম্পৃক্তি তিনজনকে গ্রেফতার ও হত্যা রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে। ডিবি ও থানা পুলিশের একাধিক টিম হত্যা রহস্য উদঘাটনে কাজ করেছে। গ্রেফতার আসামিরা স্বীকার করেছেন, কিতাব আলী তাদের পরিচিত ছিল। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে কিতাব আলী ও আসামিরা ঘটনাস্থলে বসে গাঁজা সেবন করেন। এ সময় আর্থিক লেনদেন নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে কিতাব আলীর সাথে থাকা একটি হাসুয়া কেড়ে নিয়ে আসামি সাইফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর ও হাফিজুর তাকে কুপিয়ে জখম করেন। পরে গলা কেটে হত্যা নিশ্চিত করে পালিয়ে যান।

তিনি আরো বলেন, গ্রেফতার আসামিদের মধ্যে জাহাঙ্গীর ও হাফিজুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদলতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। তাদের তিনজনকেই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের মাঠ থেকে কিতাব আলীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ

Tag :
জনপ্রিয়

নীলমনিগনজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এস এস সি ৯৭ ব্যাচের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

দামুড়হুদায় কিতাব আলী হত্যাকাণ্ডের ১২ ঘণ্টার মধ্যে রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার ৩

Update Time : ০৪:২১:০৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ এপ্রিল ২০২৩

শিমুল রেজাঃ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদায় কিতাব আলীকে (৪৮) কুপিয়ে ও গলাকেটে হত্যা মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার তিনজনই হত্যা সাথে সরাসরি সম্পৃক্ত। তাদের দু’জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন।

শুক্রবার বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান। এর আগে বৃহস্পতিবার রাতে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার আসামিরা হলেন দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের স্কুলপাড়ার শাহাবুদ্দিন শাবুর ছেলে জাহাঙ্গীর (৩৮), একই পাড়ার রমজান আলীর ছেলে সাইফুল ইসলাম (৪৪) ও লোকনাথপুর মাঝেরপাড়ার মিলন হোসেনের ছেলে হাফিজুর (২০)।

পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, ‘হত্যা মামলার মাত্র ১২ ঘণ্টার মধ্যে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘটনার সাথে সরাসরি সম্পৃক্তি তিনজনকে গ্রেফতার ও হত্যা রহস্য উদঘাটন করা হয়েছে। ডিবি ও থানা পুলিশের একাধিক টিম হত্যা রহস্য উদঘাটনে কাজ করেছে। গ্রেফতার আসামিরা স্বীকার করেছেন, কিতাব আলী তাদের পরিচিত ছিল। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে কিতাব আলী ও আসামিরা ঘটনাস্থলে বসে গাঁজা সেবন করেন। এ সময় আর্থিক লেনদেন নিয়ে তাদের মধ্যে বাগবিতণ্ডা হয়। এক পর্যায়ে কিতাব আলীর সাথে থাকা একটি হাসুয়া কেড়ে নিয়ে আসামি সাইফুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর ও হাফিজুর তাকে কুপিয়ে জখম করেন। পরে গলা কেটে হত্যা নিশ্চিত করে পালিয়ে যান।

তিনি আরো বলেন, গ্রেফতার আসামিদের মধ্যে জাহাঙ্গীর ও হাফিজুর জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আদলতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দিয়েছেন। তাদের তিনজনকেই আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত বুধবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের কাদিপুর গ্রামের মাঠ থেকে কিতাব আলীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ