০৫:২০ অপরাহ্ন, শনিবার, ১৮ মে ২০২৪, ৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পান বরজে আগুন, পুড়ে শেষ হলো কৃষকের স্বপ্ন

  • আরিফুল ইসলাম
  • Update Time : ১২:৩১:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪
  • ১১৭ Time View

 

আগুনে পুড়ে প্রায় দুই’শ পিলি পানবরজ ও পানি উত্তোলনে ব্যাবহৃত মেশিন (মন্টু মেশিন) পুড়ে গেছে। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার হাপানিয়া গ্রামের তুহিন মিয়ার উরুফে তুতা মিয়ার(৪৫) বরজে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষনিক ভাবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান,
দুপুর ১২টার সময় তিব্র গরম সহ্য না করতে পারায় কৃষকদের বড় অংশ তখন বাড়ি ফেরার পথে রওনা দিয়েছে। তাই মাঠূ ওই সময় খুব বেশি মানুষ ছিল না আর আশেপাশে পানির ব্যাবস্থা ছিল না তাই অল্প কিছু মানুষের পক্ষে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আশা সম্ভব হয়নি, ফলে পুরো বরজ ও সেচ কাজে ব্যবহার করার জন্য ব্যাবহৃত মেশিন পুড়ে গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সুত্রে জানাগেছে, উক্ত পান বরজের থেকে তাদের সাংসারিক খরচ ব্যায় করা হয়। আয়ের এই উৎসটি অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়ায় তাদের জীবনের সাধারণ গতি ব্যাহত হবে।
আরো জানাগেছে, ঘটনার দিন সকালে উক্ত বরজ থেকে পান বিক্রয়ের জন্য বাজারে নিয়ে এসেছিল তুতা মিয়া।

জনপ্রিয়

চুয়াডাঙ্গায় পাখিভ্যানের ধাক্কায় এক জন বাইসাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে 

পান বরজে আগুন, পুড়ে শেষ হলো কৃষকের স্বপ্ন

Update Time : ১২:৩১:৪৩ অপরাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২৪

 

আগুনে পুড়ে প্রায় দুই’শ পিলি পানবরজ ও পানি উত্তোলনে ব্যাবহৃত মেশিন (মন্টু মেশিন) পুড়ে গেছে। চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গার হাপানিয়া গ্রামের তুহিন মিয়ার উরুফে তুতা মিয়ার(৪৫) বরজে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষনিক ভাবে আগুনের সূত্রপাত সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি।

স্থানীয়রা জানান,
দুপুর ১২টার সময় তিব্র গরম সহ্য না করতে পারায় কৃষকদের বড় অংশ তখন বাড়ি ফেরার পথে রওনা দিয়েছে। তাই মাঠূ ওই সময় খুব বেশি মানুষ ছিল না আর আশেপাশে পানির ব্যাবস্থা ছিল না তাই অল্প কিছু মানুষের পক্ষে আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আশা সম্ভব হয়নি, ফলে পুরো বরজ ও সেচ কাজে ব্যবহার করার জন্য ব্যাবহৃত মেশিন পুড়ে গেছে।

ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার সুত্রে জানাগেছে, উক্ত পান বরজের থেকে তাদের সাংসারিক খরচ ব্যায় করা হয়। আয়ের এই উৎসটি অগ্নিকাণ্ডে পুড়ে যাওয়ায় তাদের জীবনের সাধারণ গতি ব্যাহত হবে।
আরো জানাগেছে, ঘটনার দিন সকালে উক্ত বরজ থেকে পান বিক্রয়ের জন্য বাজারে নিয়ে এসেছিল তুতা মিয়া।