১০:৩১ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

চুয়াডাঙ্গা -২ আসনে নৌকার মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে মোঃ নূর হাকিম

  • MD Abdulla Haq
  • Update Time : ০৯:৩০:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩
  • ৭৬ Time View

 

শিমুল রেজাঃ
সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ডিসেম্বরের শেষ কিংবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কবে নাগাদ তফশিল ঘোষনা হবে তা নিয়েও রয়েছে ধোঁয়াশা। তবে বসে নেই প্রার্থীরা। তফশিল ঘোষণার আগেই ইতোমধ্যে মাঠে মায়দানে প্রার্থীদের দোড়ঝাপ শুরু হয়েছে। নৌকা পেতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে সম্ভাব্য সকল প্রার্থীরা। তবে এবার ব্যতিক্রম মনে হচ্ছে, সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছে চুয়াডাঙ্গা-২ আসন (জীবননগর, দর্শনা, দামুড়হুদা) উপজেলাব্যাপী জনপ্রিয় ও ত্যাগী নেতা জাতীয় দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার সম্পাদক মো: নূর হাকিম। তিনি প্রচার প্রচারণাও চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এজন্য তিনি চুয়াডাঙ্গা- ২ আসনের জীবননগর, দর্শনা , দামুড়হুদা, বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও উন্নয়নমূলক কাজে নিয়মিত অংশ নিচ্ছেন। এর পাশাপাশি প্রতিনিয়তই চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎসহ নানা কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে নিজেকে জানান দিচ্ছেন। সব মিলিয়ে মনোনয়ন দৌড়ে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছেন আওয়ামী লীগের এই নেতা।আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত মো: নুর হাকিম। নৌকা পেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে বুকে ধারণ করেই চুয়াডাঙ্গা ২ আসন বাসীর জন্য কাজ করার অঙ্গিকারও করেছেন তিনি।আ.লীগ সূত্রে জানা গেছে, গেল নির্বাচনে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদেরর বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আওয়ামীলীগ দলের নীতিনির্ধারকরা বলছেন, নৌকা বিদ্রোহীরা আওয়ামীলীগের শত্রু, তারা কখনোই দলীয় মনোনয়ন পাবে না। তাছাড়া এবার যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিবে তাদের দল থেকে আজীবনের জন্য বহিঃস্কার করা হবে। তারা আর আওয়ামীলীগের রাজনীতি করতে পারবে না।

এলাকাবাসীরা জানান, জনগনের সুখে দুঃখে খোঁজ খবর নেয়া এবং পাশে দাড়ানো মো: নূর হাকিমের নেশা। এছাড়া দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বাড়ি বাড়ি ঘুরে উঠান বৈঠক করতে দীর্ঘপথ ছুটে বেড়াচ্ছেন চুয়াডাঙ্গা- ২ আসনের বিভিন্ন গ্রামে। করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন চলাকালীন সময়ে তিনি এলাকার অসহায় দরিদ্র পরিবারের মাঝে সামর্থ্য অনুযায়ী ত্রাণ বিতরণসহ প্রতিনিয়ত এলাকাবাসীর খোঁজ খবর রাখেছেন। এছাড়া নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন গ্রামে গণসংযোগ চালাচ্ছেন তিনি।

মো: নূর হাকিম বলেছেন, আমি আমার জীবনের অর্ধেক সময় ধরেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছি আশা করি আমার প্রাণপ্রিয় নেতা ও জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন বঞ্চিত করবেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অংশীদার হতে নৌকা প্রতীক নিয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে দীর্ঘদিনের অবহেলিত চুয়াডাঙ্গা ২ আসন ( জীবননগর, দর্শনা ও দামুড়হুদা উপজেলা কে একটি আধুনিক মডেল উপজেলা রূপান্তর করবো। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদের জন্য সমর্থন ও ভোট প্রার্থনা করছি। আমি নির্বাচিত হলে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত একটি আসন উপহার দেব। ইনশাআল্লাহ।

এ সময় তিনি আরও বলেন, এমপি পদে নির্বাচন করার ইচ্ছে নিয়েই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিভিন্ন গ্রামের ঘরে ঘরে গিয়ে জনগণের সঙ্গে মতবিনিময় করছি। মো: নূর হাকিম আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও মুক্তিযোদ্ধের চেতনা নিয়ে আমার পরিবার। তাই এই চেতনাকেই আজীবন ধারণ করতে চাইসার্বিক বিবেচনায় এলাকার জনসাধারণ বলেন মো: নূর হাকিম সংসদ সদস্য হিসেবে একজন যোগ্য প্রার্থী। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ‘নৌকা’ প্রতীকে মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি বিপুল ভোট বিজয়ী হবেন।’

Tag :
About Author Information

MD Abdulla Haq

জনপ্রিয়

শবে বরাতের নামাজের নিয়ম ও দোয়া

চুয়াডাঙ্গা -২ আসনে নৌকার মনোনয়ন দৌড়ে এগিয়ে মোঃ নূর হাকিম

Update Time : ০৯:৩০:১০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৩ অগাস্ট ২০২৩

 

শিমুল রেজাঃ
সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ডিসেম্বরের শেষ কিংবা জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। কবে নাগাদ তফশিল ঘোষনা হবে তা নিয়েও রয়েছে ধোঁয়াশা। তবে বসে নেই প্রার্থীরা। তফশিল ঘোষণার আগেই ইতোমধ্যে মাঠে মায়দানে প্রার্থীদের দোড়ঝাপ শুরু হয়েছে। নৌকা পেতে মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে সম্ভাব্য সকল প্রার্থীরা। তবে এবার ব্যতিক্রম মনে হচ্ছে, সবচেয়ে বেশি আলোচনায় আছে চুয়াডাঙ্গা-২ আসন (জীবননগর, দর্শনা, দামুড়হুদা) উপজেলাব্যাপী জনপ্রিয় ও ত্যাগী নেতা জাতীয় দৈনিক সকালের সময় পত্রিকার সম্পাদক মো: নূর হাকিম। তিনি প্রচার প্রচারণাও চালাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

এজন্য তিনি চুয়াডাঙ্গা- ২ আসনের জীবননগর, দর্শনা , দামুড়হুদা, বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান ও উন্নয়নমূলক কাজে নিয়মিত অংশ নিচ্ছেন। এর পাশাপাশি প্রতিনিয়তই চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎসহ নানা কর্মসূচিতে উপস্থিত হয়ে নিজেকে জানান দিচ্ছেন। সব মিলিয়ে মনোনয়ন দৌড়ে সবচেয়ে ভালো অবস্থানে রয়েছেন আওয়ামী লীগের এই নেতা।আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে যুক্ত মো: নুর হাকিম। নৌকা পেলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানকে বুকে ধারণ করেই চুয়াডাঙ্গা ২ আসন বাসীর জন্য কাজ করার অঙ্গিকারও করেছেন তিনি।আ.লীগ সূত্রে জানা গেছে, গেল নির্বাচনে নৌকার বিদ্রোহী প্রার্থীদেরর বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছে আওয়ামীলীগ দলের নীতিনির্ধারকরা বলছেন, নৌকা বিদ্রোহীরা আওয়ামীলীগের শত্রু, তারা কখনোই দলীয় মনোনয়ন পাবে না। তাছাড়া এবার যারা নৌকার বিপক্ষে অবস্থান নিবে তাদের দল থেকে আজীবনের জন্য বহিঃস্কার করা হবে। তারা আর আওয়ামীলীগের রাজনীতি করতে পারবে না।

এলাকাবাসীরা জানান, জনগনের সুখে দুঃখে খোঁজ খবর নেয়া এবং পাশে দাড়ানো মো: নূর হাকিমের নেশা। এছাড়া দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়সহ বাড়ি বাড়ি ঘুরে উঠান বৈঠক করতে দীর্ঘপথ ছুটে বেড়াচ্ছেন চুয়াডাঙ্গা- ২ আসনের বিভিন্ন গ্রামে। করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন চলাকালীন সময়ে তিনি এলাকার অসহায় দরিদ্র পরিবারের মাঝে সামর্থ্য অনুযায়ী ত্রাণ বিতরণসহ প্রতিনিয়ত এলাকাবাসীর খোঁজ খবর রাখেছেন। এছাড়া নির্বাচনকে সামনে রেখে বিভিন্ন গ্রামে গণসংযোগ চালাচ্ছেন তিনি।

মো: নূর হাকিম বলেছেন, আমি আমার জীবনের অর্ধেক সময় ধরেই আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত আছি আশা করি আমার প্রাণপ্রিয় নেতা ও জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মনোনয়ন বঞ্চিত করবেন না। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের অংশীদার হতে নৌকা প্রতীক নিয়ে জাতীয় সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলে দীর্ঘদিনের অবহেলিত চুয়াডাঙ্গা ২ আসন ( জীবননগর, দর্শনা ও দামুড়হুদা উপজেলা কে একটি আধুনিক মডেল উপজেলা রূপান্তর করবো। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এমপি পদের জন্য সমর্থন ও ভোট প্রার্থনা করছি। আমি নির্বাচিত হলে মাদক ও সন্ত্রাসমুক্ত একটি আসন উপহার দেব। ইনশাআল্লাহ।

এ সময় তিনি আরও বলেন, এমপি পদে নির্বাচন করার ইচ্ছে নিয়েই সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত বিভিন্ন গ্রামের ঘরে ঘরে গিয়ে জনগণের সঙ্গে মতবিনিময় করছি। মো: নূর হাকিম আরও বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ ও মুক্তিযোদ্ধের চেতনা নিয়ে আমার পরিবার। তাই এই চেতনাকেই আজীবন ধারণ করতে চাইসার্বিক বিবেচনায় এলাকার জনসাধারণ বলেন মো: নূর হাকিম সংসদ সদস্য হিসেবে একজন যোগ্য প্রার্থী। চুয়াডাঙ্গা-২ আসনে তাকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ‘নৌকা’ প্রতীকে মনোনয়ন দেয়া হলে তিনি বিপুল ভোট বিজয়ী হবেন।’