০৪:১৭ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

স্কুলছাত্রী অদিতা হত্যার মামলায় তার সাবেক গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে পুলিশ

  • MD Abdulla Haq
  • Update Time : ১২:৩৯:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩
  • ৮৮ Time View
নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে চাঞ্চল্যকর অদিতা হত্যাকান্ডের ঘটনার ৭ মাস পর অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। গেলো বছরের ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে জেলা শহরের পূর্ব লক্ষ্মীনারায়নপুর এলাকায় নিজ বাসায় নির্মমভাবে খুন হন নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী তাসনিয়া হোসেন অদিতা (১৪)। হত্যা মামলায় তার গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনির বিরুদ্ধে আদালতে ৭ মাস পর অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সুধারাম মডেল থানার এস আই স্পেসল্যাব চৌধুরী প্রমোজ জেলার মুখ্য বিচারিক আদালতের জিআরও অফিসে এ অভিযোগপত্র জমা দেন।
জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম জানান, মামলার তদন্তে ৩১ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ, আসামির ডিএনএ পরীক্ষার প্রতিবেদন, হত্যায় ব্যবহৃত ছোরা, ভিকটিম ও আসামির জামা কাপড়সহ অন্যন্য আলামত জমা দেওয়া হয় বলে জানান তিনি। চাঞ্চল্যকর এ মামলার অভিযোগপত্রে স্কুলছাত্রী অদিতার সাবেক গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনি তাকে একা ঘরে ধর্ষণের চষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে বালিশ চাপা দিয়ে এবং গলা কেটে হত্যা করে বলে উল্লেখ করা হয়।
প্রসঙ্গত: ২০২২ সালের ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে নোয়াখালী জেলা শহরের পূর্ব লক্ষ্মীনারায়নপুর এলাকায় নিজ বাসা থেকে নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী তাসনিয়া হোসেন অদিতার (১৪) রক্তাক্ত নিথর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় নিহতের মা রাজিয়া সুলতানা রুবি বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামির বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরদিন এ ঘটনায় অদিতার সাবেক গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে অপরাধ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় রনি।
Tag :
About Author Information

MD Abdulla Haq

চুয়াডাঙ্গায় প্রায় কোটি টাকার স্বর্ণসহ দর্শনার তাছলিমা আটক

স্কুলছাত্রী অদিতা হত্যার মামলায় তার সাবেক গৃহশিক্ষকের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে পুলিশ

Update Time : ১২:৩৯:০৭ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৩
নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে চাঞ্চল্যকর অদিতা হত্যাকান্ডের ঘটনার ৭ মাস পর অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ। গেলো বছরের ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে জেলা শহরের পূর্ব লক্ষ্মীনারায়নপুর এলাকায় নিজ বাসায় নির্মমভাবে খুন হন নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী তাসনিয়া হোসেন অদিতা (১৪)। হত্যা মামলায় তার গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনির বিরুদ্ধে আদালতে ৭ মাস পর অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার দুপুরে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা সুধারাম মডেল থানার এস আই স্পেসল্যাব চৌধুরী প্রমোজ জেলার মুখ্য বিচারিক আদালতের জিআরও অফিসে এ অভিযোগপত্র জমা দেন।
জেলা পুলিশ সুপার মো. শহীদুল ইসলাম জানান, মামলার তদন্তে ৩১ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ, আসামির ডিএনএ পরীক্ষার প্রতিবেদন, হত্যায় ব্যবহৃত ছোরা, ভিকটিম ও আসামির জামা কাপড়সহ অন্যন্য আলামত জমা দেওয়া হয় বলে জানান তিনি। চাঞ্চল্যকর এ মামলার অভিযোগপত্রে স্কুলছাত্রী অদিতার সাবেক গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনি তাকে একা ঘরে ধর্ষণের চষ্টা করে ব্যর্থ হয়ে বালিশ চাপা দিয়ে এবং গলা কেটে হত্যা করে বলে উল্লেখ করা হয়।
প্রসঙ্গত: ২০২২ সালের ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে নোয়াখালী জেলা শহরের পূর্ব লক্ষ্মীনারায়নপুর এলাকায় নিজ বাসা থেকে নোয়াখালী সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেণির ছাত্রী তাসনিয়া হোসেন অদিতার (১৪) রক্তাক্ত নিথর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় নিহতের মা রাজিয়া সুলতানা রুবি বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামির বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরদিন এ ঘটনায় অদিতার সাবেক গৃহশিক্ষক আবদুর রহিম রনিকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে অপরাধ স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেয় রনি।