০২:২৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গার বই মেলার সমাপণী দিনে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়

  • Update Time : ০৬:৪৩:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪
  • ২৯ Time View

মীর রোকনুজ্জামানঃ

চুয়াডাঙ্গা জেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা আলমডাঙ্গাতে প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ২ দিন ব্যাপি অমর একুশে বই মেলা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল ২০ এ ফেব্রুয়ারী বুধবার চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দারের উপস্থিতিতে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই বই মেলার উদ্ভোধন হয়। আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের আয়োজনে প্রথমবারের মত এই বই মেলায় আজকের সমাপণী দিনে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। এই মেলায় বই এর স্টল ছিলো ১২ টি, পাশাপাশি ছিলো পিঠা উৎসবের বেশ কয়েকটি স্টল। এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছিলোঃ তাজবিদ মার্ট, নিমগ্ন পাঠাগার, উদ্ভাস সাহিত্য সংস্থা, ঢাকা বই ঘর, বাংলাদেশ বই ঘর, বই বিতান, আলমডাঙ্গা বই ঘর, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আলমডাঙ্গা কলেজ শাখা, সুন্নাহ কালেকশন, স্বয়ম্ভর পাবলিক লাইব্রেরি, আলমডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদ, আলাউদ্দিন আহমেদ পাঠাগার, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজ লাইব্রেরি প্রমুখ। সমাপণী দিনে বই প্রেমী ক্রেতা দর্শনার্থীরা আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের নব্য নিযুক্ত অধ্যক্ষ মহাদয় প্রফেসর ড. জে. এম. আব্দুর রকীব স্যার কে প্রথমবারের মতো এরকম একটি সফল উদ্যোগ গ্রহণ করায় সাধুবাদ জানায় পাশাপাশি তারা প্রত্যাশা করেন এই অমর একুশে বই মেলা যেনো প্রতি বছর হয়।

Tag :
জনপ্রিয়

নীলমনিগনজ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এস এস সি ৯৭ ব্যাচের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

আলমডাঙ্গার বই মেলার সমাপণী দিনে দর্শনার্থীদের উপচে পড়া ভিড়

Update Time : ০৬:৪৩:২৭ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

মীর রোকনুজ্জামানঃ

চুয়াডাঙ্গা জেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ উপজেলা আলমডাঙ্গাতে প্রথমবারের মত আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ২ দিন ব্যাপি অমর একুশে বই মেলা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল ২০ এ ফেব্রুয়ারী বুধবার চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা জনাব সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দারের উপস্থিতিতে এক জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই বই মেলার উদ্ভোধন হয়। আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের আয়োজনে প্রথমবারের মত এই বই মেলায় আজকের সমাপণী দিনে ক্রেতা ও দর্শনার্থীদের ভিড় ছিলো চোখে পড়ার মতো। এই মেলায় বই এর স্টল ছিলো ১২ টি, পাশাপাশি ছিলো পিঠা উৎসবের বেশ কয়েকটি স্টল। এই মেলায় অংশগ্রহণ করেছিলোঃ তাজবিদ মার্ট, নিমগ্ন পাঠাগার, উদ্ভাস সাহিত্য সংস্থা, ঢাকা বই ঘর, বাংলাদেশ বই ঘর, বই বিতান, আলমডাঙ্গা বই ঘর, বাংলাদেশ ছাত্রলীগ আলমডাঙ্গা কলেজ শাখা, সুন্নাহ কালেকশন, স্বয়ম্ভর পাবলিক লাইব্রেরি, আলমডাঙ্গা সাহিত্য পরিষদ, আলাউদ্দিন আহমেদ পাঠাগার, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজ লাইব্রেরি প্রমুখ। সমাপণী দিনে বই প্রেমী ক্রেতা দর্শনার্থীরা আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের নব্য নিযুক্ত অধ্যক্ষ মহাদয় প্রফেসর ড. জে. এম. আব্দুর রকীব স্যার কে প্রথমবারের মতো এরকম একটি সফল উদ্যোগ গ্রহণ করায় সাধুবাদ জানায় পাশাপাশি তারা প্রত্যাশা করেন এই অমর একুশে বই মেলা যেনো প্রতি বছর হয়।