০২:৩৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৪, ১ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিয়ে বাড়িতে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫০

  • Update Time : ১২:৩২:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩
  • ৪৫ Time View

মৌলভীবাজারের রাজনগরে বিয়ে বাড়িতে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে রাজনগর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বেতাহুঞ্জা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতাল ও রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আহতদের মধ্যে রয়েছেন- হৃদয় মিয়া, নাসেল মিয়া, মিলু, আশব মিয়া, মিছকার, সুন্দর মিয়া, সেলিম, আবু কালাম, আকবর, আমিন মিয়া, বাক্কর মিয়া, আয়াতুন বেগম, হোসেনা বেগম, লায়লুছ মিয়া, মাহিম, ফরিছ মিয়া, জুবেল মিয়া, শাকিল মিয়া, শানাই মিয়া, আয়াছ, আহাদ মিয়া, আব্দুস সালাম, মিজানুর রহমান, পাবলু মিয়া, ইদাই মিয়া, শামিম, এবাদুর রহমান, ইসকার মিয়া, আজাদ মিয়া, ইদুকার মিয়া, হাবিবুর রহমান, মতি মিয়া, আব্দুল হাকিম, সেকাদ আলী, পাপ্পু, আছকির আলী, রমজান আলী, মাহমুদুল আহমদ, নাজমুল, মুক্তার মিয়া, নাসাই মিয়া ও মিলু আহমদ।

গুরুতর আহত হৃদয় মিয়া, নাসেল মিয়া, মিলু ও আশব মিয়াকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদেরকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতাল ও রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বেতাহুঞ্জা গ্রামের আজমত মিয়ার ছেলে কয়েছ মিয়ার বিয়ে ছিল শুক্রবার। বিয়ের আগের রাতে (বৃহস্পতিবার) বরের বাড়িতে ‘ধামাইল’ দেওয়ার জন্য এলাকার ছেলেরা জড়ো হন। এ সময় ঐ এলাকার চেরাগ মিয়া, এরাগ মিয়া এবং লালা মিয়ার ছেলেদের সঙ্গে ইসকার মিয়া ও মিসকার মিয়ার ছেলেদের কথা কটাকাটি হয়। বিষয়টি ঐ সময়ই স্থানীয়রা সমাধান করে দেন। শুক্রবার জুমার নামাজে যাওয়ার সময় ঐ ঘটনার জেরে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে অন্তত ৫০ জন আহত হন।

স্থানীয়া ইউপি সদস্য সুহেল আহমদ জানান, বিয়ে বাড়িতে ‘ধামাইল’ দেওয়ার সময় দুইপক্ষের ছেলেদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। শুক্রবার জুমার নামাজে যাওয়ার সময় এ ঘটনার জেরে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

রাজনগর থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় জানান, এ সংঘর্ষের ঘটনায় অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে

Tag :
জনপ্রিয়

প্রথম রাজধানী গ্রুপের অ্যাডমিন প্যানেলের ঈদ পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

বিয়ে বাড়িতে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে সংঘর্ষ, আহত ৫০

Update Time : ১২:৩২:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৫ অগাস্ট ২০২৩

মৌলভীবাজারের রাজনগরে বিয়ে বাড়িতে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৫০ জন আহত হয়েছেন।

শুক্রবার দুপুর ১টার দিকে রাজনগর উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বেতাহুঞ্জা গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতাল ও রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়।

আহতদের মধ্যে রয়েছেন- হৃদয় মিয়া, নাসেল মিয়া, মিলু, আশব মিয়া, মিছকার, সুন্দর মিয়া, সেলিম, আবু কালাম, আকবর, আমিন মিয়া, বাক্কর মিয়া, আয়াতুন বেগম, হোসেনা বেগম, লায়লুছ মিয়া, মাহিম, ফরিছ মিয়া, জুবেল মিয়া, শাকিল মিয়া, শানাই মিয়া, আয়াছ, আহাদ মিয়া, আব্দুস সালাম, মিজানুর রহমান, পাবলু মিয়া, ইদাই মিয়া, শামিম, এবাদুর রহমান, ইসকার মিয়া, আজাদ মিয়া, ইদুকার মিয়া, হাবিবুর রহমান, মতি মিয়া, আব্দুল হাকিম, সেকাদ আলী, পাপ্পু, আছকির আলী, রমজান আলী, মাহমুদুল আহমদ, নাজমুল, মুক্তার মিয়া, নাসাই মিয়া ও মিলু আহমদ।

গুরুতর আহত হৃদয় মিয়া, নাসেল মিয়া, মিলু ও আশব মিয়াকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অন্যদেরকে মৌলভীবাজার ২৫০ শয্যার হাসপাতাল ও রাজনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

জানা যায়, উপজেলার ফতেহপুর ইউনিয়নের বেতাহুঞ্জা গ্রামের আজমত মিয়ার ছেলে কয়েছ মিয়ার বিয়ে ছিল শুক্রবার। বিয়ের আগের রাতে (বৃহস্পতিবার) বরের বাড়িতে ‘ধামাইল’ দেওয়ার জন্য এলাকার ছেলেরা জড়ো হন। এ সময় ঐ এলাকার চেরাগ মিয়া, এরাগ মিয়া এবং লালা মিয়ার ছেলেদের সঙ্গে ইসকার মিয়া ও মিসকার মিয়ার ছেলেদের কথা কটাকাটি হয়। বিষয়টি ঐ সময়ই স্থানীয়রা সমাধান করে দেন। শুক্রবার জুমার নামাজে যাওয়ার সময় ঐ ঘটনার জেরে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। ২ ঘণ্টাব্যাপী চলা এ সংঘর্ষে অন্তত ৫০ জন আহত হন।

স্থানীয়া ইউপি সদস্য সুহেল আহমদ জানান, বিয়ে বাড়িতে ‘ধামাইল’ দেওয়ার সময় দুইপক্ষের ছেলেদের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। শুক্রবার জুমার নামাজে যাওয়ার সময় এ ঘটনার জেরে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে লিপ্ত হয়।

রাজনগর থানার ওসি বিনয় ভূষণ রায় জানান, এ সংঘর্ষের ঘটনায় অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে