০৯:৪৮ পূর্বাহ্ন, সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২১ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮০.৩৯

  • MD Abdulla Haq
  • Update Time : ১১:১০:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩
  • ২৫ Time View

 

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এ বছর পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৯ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০২ শিক্ষার্থী। এবার পাসের হারে এগিয়ে আছে যশোর শিক্ষা বোর্ড। গত বছরের চেয়ে জিপিএ-৫ বেড়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৭৬২টি।
শুক্রবার সকালে অনলাইন এবং স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে একযোগে প্রকাশিত হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল।

প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ০৩ শতাংশ। রাজশাহী বোর্ডে ৮৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডে পাশের হার ৯১ দশমিক ২৮ শতাংশ, যশোরে ৯৫ দশমিক ৯২ শতাংশ, চট্টগ্রামে ৮৭ দশমিক ৫৩ শতাংশ, বরিশালে ৮৯ দশমিক ৬১ শতাংশ, সিলেট ৭৮ দশমিক ৮২ শতাংশ, দিনাজপুরে ৮১ দশমিক ১৬ শতাংশ, রংপুর ও ময়মনসিংহে ৮৯ দশমিক ০২ শতাংশ।

এর আগে, সকাল ৯টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল তুলে দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এরপর অনলাইনে ফলাফল প্রকাশের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।

রাজধানীর সেগুনবাগিচার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলনে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। ফলাফলে দেখা গেছে, এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০২ শিক্ষার্থী। গত বছরের চেয়ে জিপিএ-৫ বেড়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৭৬২। শতভাগ পাশ করেছে এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা এবার ২ হাজার ৯৭৫।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, একজনও পাস করেনি এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৫০টি। আর জিপিএ-৫ বেড়েছে কারণ পড়ালেখা ভালো হয়েছে শিক্ষার্থীদের।

এছাড়া কারিগরি বোর্ডে এবার পাসের হার ৮৯ দশমিক ৫৫ শতাংশ। মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ২২ শতাংশ। এবার ছাত্রদের পাসের হার ৮৭ দশমিক ১৬ শতাংশ। সেখানে ছাত্রীরা পাস করেছে ৮৭ দশমিক ৭১ শতাংশ। গত বছরের মতো এবারও জিপিএ-৫ এ ছেলেদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা।

শিক্ষার্থীরা (www.dhakaeducationboard.gov.bd) এবং (www.educationboardresults.gov.bd) ওয়েবসাইটে রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে রেজাল্ট শিট ডাউনলোড করতে পারবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক রেজাল্ট শিট পেতে বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এরপর রেজাল্ট কর্নারে ক্লিক করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ইআইআইএন এন্ট্রি করতে হবে। তাহলে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের রেজাল্ট শিট ডাউনলোড করা যাবে।

এ ছাড়া এসএমএসের মাধ্যমেও ফল জানা যাবে। এসএমএসের ক্ষেত্রে মুঠোফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে SSC লিখে স্পেস দিয়ে ইংরেজিতে বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর দিতে হবে। এর পর স্পেস দিয়ে পরীক্ষার বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। (উদাহরণ-SSC DHA ROLL YEAR)। ফিরতি মেসেজে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

গত ৩০ এপ্রিল এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন দাখিল এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখের বেশি।

Tag :
About Author Information

MD Abdulla Haq

চুয়াডাঙ্গায় প্রায় কোটি টাকার স্বর্ণসহ দর্শনার তাছলিমা আটক

এসএসসির ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮০.৩৯

Update Time : ১১:১০:০৯ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ২৮ জুলাই ২০২৩

 

চলতি বছরের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হয়েছে। এ বছর পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৯ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০২ শিক্ষার্থী। এবার পাসের হারে এগিয়ে আছে যশোর শিক্ষা বোর্ড। গত বছরের চেয়ে জিপিএ-৫ বেড়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৭৬২টি।
শুক্রবার সকালে অনলাইন এবং স্ব স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে একযোগে প্রকাশিত হয়েছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল।

প্রকাশিত ফলাফল অনুযায়ী, ঢাকা বোর্ডে পাসের হার ৯০ দশমিক ০৩ শতাংশ। রাজশাহী বোর্ডে ৮৫ দশমিক ৮৮ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডে পাশের হার ৯১ দশমিক ২৮ শতাংশ, যশোরে ৯৫ দশমিক ৯২ শতাংশ, চট্টগ্রামে ৮৭ দশমিক ৫৩ শতাংশ, বরিশালে ৮৯ দশমিক ৬১ শতাংশ, সিলেট ৭৮ দশমিক ৮২ শতাংশ, দিনাজপুরে ৮১ দশমিক ১৬ শতাংশ, রংপুর ও ময়মনসিংহে ৮৯ দশমিক ০২ শতাংশ।

এর আগে, সকাল ৯টার দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল তুলে দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। এরপর অনলাইনে ফলাফল প্রকাশের ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী।

রাজধানীর সেগুনবাগিচার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটে সংবাদ সম্মেলনে ফলাফলের বিস্তারিত তুলে ধরেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। ফলাফলে দেখা গেছে, এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ২ লাখ ৬৯ হাজার ৬০২ শিক্ষার্থী। গত বছরের চেয়ে জিপিএ-৫ বেড়েছে ১ লাখ ৫ হাজার ৭৬২। শতভাগ পাশ করেছে এমন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা এবার ২ হাজার ৯৭৫।

শিক্ষামন্ত্রী জানান, একজনও পাস করেনি এমন প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৫০টি। আর জিপিএ-৫ বেড়েছে কারণ পড়ালেখা ভালো হয়েছে শিক্ষার্থীদের।

এছাড়া কারিগরি বোর্ডে এবার পাসের হার ৮৯ দশমিক ৫৫ শতাংশ। মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৮২ দশমিক ২২ শতাংশ। এবার ছাত্রদের পাসের হার ৮৭ দশমিক ১৬ শতাংশ। সেখানে ছাত্রীরা পাস করেছে ৮৭ দশমিক ৭১ শতাংশ। গত বছরের মতো এবারও জিপিএ-৫ এ ছেলেদের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে মেয়েরা।

শিক্ষার্থীরা (www.dhakaeducationboard.gov.bd) এবং (www.educationboardresults.gov.bd) ওয়েবসাইটে রোল ও রেজিস্ট্রেশন নম্বর দিয়ে রেজাল্ট শিট ডাউনলোড করতে পারবে। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানভিত্তিক রেজাল্ট শিট পেতে বোর্ডের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে হবে। এরপর রেজাল্ট কর্নারে ক্লিক করে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ইআইআইএন এন্ট্রি করতে হবে। তাহলে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের রেজাল্ট শিট ডাউনলোড করা যাবে।

এ ছাড়া এসএমএসের মাধ্যমেও ফল জানা যাবে। এসএমএসের ক্ষেত্রে মুঠোফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে SSC লিখে স্পেস দিয়ে ইংরেজিতে বোর্ডের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর দিতে হবে। এর পর স্পেস দিয়ে পরীক্ষার বছর লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে। (উদাহরণ-SSC DHA ROLL YEAR)। ফিরতি মেসেজে ফল জানিয়ে দেওয়া হবে।

গত ৩০ এপ্রিল এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হয়। ৯টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীন দাখিল এবং কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের অধীন এসএসসি ও দাখিল (ভোকেশনাল) পরীক্ষায় পরীক্ষার্থী ছিল ২০ লাখের বেশি।