০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

গরু পাটক্ষেত খাওয়ায় সংঘর্ষে দুইজন নিহত, গ্রেফতার ২

  • Update Time : ০৪:৫১:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ জুন ২০২৩
  • ৪১ Time View

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে গরু পাটক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই কৃষকের মৃত্যু ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ মামলায় এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এর আগে, গত বুধবার বিকেলে হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১০ জনকে আটক করেছিল পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে নিহত বজলু মালিথার ছেলে নাহিদ হোসেন বাদী হয়ে ৩২ জনের নাম উল্লেখসহ ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে দৌলতপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় এখন পর্যন্ত মাহাতাব ও রফেজ নামে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা  দৌলতপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক রাকিব হোসেন।

গত বুধবার বিকেলে উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ভুরকাপাড়া গ্রামের হাটখোলাপাড়া এলাকায় বজলু মালিথার জমিতে সরদার গ্রুপের ফরিদ খশরুর গরু পাট খেয়ে ক্ষেত নষ্ট করে। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ শুরু হয়। গরু পাট খাওয়ায় একপর্যায়ে সরদার গ্রুপের লোকজন উজ্জ্বল সর্দারের নেতৃত্বে অসংখ্য লোকজন নিয়ে মালিথা গ্রুপের ওপর হামলা করেন। এ সময় সর্দার গ্রুপের লোকজন গুলি করেন, কুপিয়ে ও এলোপাতাড়ি মারধর করেন। এতে ভেলশ মালিথা ও বজলু মালিথা নিহত হন। এ সময় অন্তত ১৫ জন গুরুতর আহত হন। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঘটনার দিন রাতে অভিযান চালিয়ে উজ্জ্বল সর্দারের বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণে দেশীয় অস্ত্রসহ একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ জনকে আটক করে পুলিশ। আটক ১০ জনের মধ্যে এজাহার নামীয় দুই আসামিকে গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) বিকেলে নিহতের এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।  এরপরে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হাটখোলাপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় নিহতদের জানাজা শেষে গ্রামের কবরস্থানে তাদের দাফন করা হয়।

দৌলতপুর থানার ওসি মজিবুর রহমান বলেন, রাতে মামলা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আসামিদের আইনের আওতায় আনতে পুলিশ কাজ করছে

Tag :
জনপ্রিয়

চুয়াডাঙ্গায় কৃমি নিয়ন্ত্রণ সপ্তাহ ২০২৪ এর উদ্বোধন

গরু পাটক্ষেত খাওয়ায় সংঘর্ষে দুইজন নিহত, গ্রেফতার ২

Update Time : ০৪:৫১:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১৬ জুন ২০২৩

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে গরু পাটক্ষেত খাওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় দুই কৃষকের মৃত্যু ঘটনায় মামলা হয়েছে। এ মামলায় এখন পর্যন্ত দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এর আগে, গত বুধবার বিকেলে হত্যার সঙ্গে জড়িত সন্দেহে ১০ জনকে আটক করেছিল পুলিশ।

বৃহস্পতিবার দিবাগত মধ্যরাতে নিহত বজলু মালিথার ছেলে নাহিদ হোসেন বাদী হয়ে ৩২ জনের নাম উল্লেখসহ ২০/২৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে দৌলতপুর থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন।

এ মামলায় এখন পর্যন্ত মাহাতাব ও রফেজ নামে দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা  দৌলতপুর থানা পুলিশের পরিদর্শক রাকিব হোসেন।

গত বুধবার বিকেলে উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের ভুরকাপাড়া গ্রামের হাটখোলাপাড়া এলাকায় বজলু মালিথার জমিতে সরদার গ্রুপের ফরিদ খশরুর গরু পাট খেয়ে ক্ষেত নষ্ট করে। এ নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে ঝগড়া-বিবাদ শুরু হয়। গরু পাট খাওয়ায় একপর্যায়ে সরদার গ্রুপের লোকজন উজ্জ্বল সর্দারের নেতৃত্বে অসংখ্য লোকজন নিয়ে মালিথা গ্রুপের ওপর হামলা করেন। এ সময় সর্দার গ্রুপের লোকজন গুলি করেন, কুপিয়ে ও এলোপাতাড়ি মারধর করেন। এতে ভেলশ মালিথা ও বজলু মালিথা নিহত হন। এ সময় অন্তত ১৫ জন গুরুতর আহত হন। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ঘটনার দিন রাতে অভিযান চালিয়ে উজ্জ্বল সর্দারের বাড়ি থেকে বিপুল পরিমাণে দেশীয় অস্ত্রসহ একটি আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার করে। এ সময় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ১০ জনকে আটক করে পুলিশ। আটক ১০ জনের মধ্যে এজাহার নামীয় দুই আসামিকে গ্রেফতার দেখিয়ে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৫ জুন) বিকেলে নিহতের এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেন নিহতের পরিবার ও এলাকাবাসী।  এরপরে বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হাটখোলাপাড়া জামে মসজিদ এলাকায় নিহতদের জানাজা শেষে গ্রামের কবরস্থানে তাদের দাফন করা হয়।

দৌলতপুর থানার ওসি মজিবুর রহমান বলেন, রাতে মামলা হয়েছে। এলাকার পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। আসামিদের আইনের আওতায় আনতে পুলিশ কাজ করছে