০৭:৫২ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৫ মার্চ ২০২৪, ২২ ফাল্গুন ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

দামুড়হুদায় ৪ বিঘা জমির ধরন্ত পেঁপে গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে

  • MD Abdulla Haq
  • Update Time : ১১:২২:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩
  • ৩৫ Time View

দামুড়হুদা উপজেলার পরানপুর মাঠে ৪ বিঘা জমির ধরন্ত ফুলন্ত পেঁপে গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার উক্ত নতুন গ্রামের মো: আমির বিশ্বাস এর ছেলে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে।

আজ রবিবার ভোর ৫টার দিকে ভুক্তভোগী কৃষক তার জমিতে গিয়ে দেখে জমির সব পেঁপে গাছ কেটে দিয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক হলেন দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের জয়রামপুর কলনীপাড়ার মৃত আবুল কাশেম এর ছেলে রবিউল ইসলাম বাবলু। এবিষয়ে তার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মানিক দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে মো: জাকির হোসেন (৪২) পিতা: মো: আমির বিশ্বাস, গ্রাম উক্ত নতুনপাড়া, থানা ও জেলা চুয়াডাঙ্গা উক্ত বিবাদীর নিকট হইতে আমার পিতা মোঃ রবিউল ইসলাম বাবলু বিগত অনুমান ০৬ মাস পূর্বে ১৪,০০,০০০/-(চৌদ্দ লক্ষ) টাকার বিনিময়ে ০৫ বিঘা পেঁপে বাগান সহ লীজ গ্রহণ করি। টাকা ফেরত প্রদান করিলে সে তাহার জমি আমাদের নিকট হইতে ফেরত নিবে। কিন্ত হঠাৎ করে সে চুক্তিনামা থেকে আরও তিন লক্ষ টাকা বেশি দাবী করছে। আমার পিতা দিতে অস্বীকৃত জানাইলে সে আমাদের সামনে বলে টাকা না দিলে পেঁপে বাগান কেটে দেবো এবং বিভিন্ন স্থানে বলে বেড়ায় পেঁপে বাগান কেটে দেবো।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ইং ১১/০৬/২০২৩ তারিখ ভোর অনুমান ০৬:৩০ ঘটিকার সময়ে আমার পিতা উক্ত পেঁপে বাগানে গেলে দেখিতে পাই যে ০৪ বিঘা পেঁপে গাছ কেটে দেয়। আমার পেঁপে গাছগুলিতে ধরন্ত ফল ছিল। এমতাবস্থায় আমার পিতা খোজ খবর নিয়ে জানতে পারে ভোরবেলা মর্নিং ওয়ার্কে স্বাক্ষী ১। শিমুল হাসান, পিং-আঃ জলিল, ২। মোঃ রাশেদ আহম্মেদ সজিব, পিং-মুজিবুল হক (আর্মি), ৩। মোঃ রাজু, পিং-কালাম হোসেন, সর্ব সাং-দর্শনা (থানাপাড়া), উপজেলা-দামুড়হুদা, থানা-দর্শনা, জেলা-চুয়াডাঙ্গাগণ রাস্তায় হাটছিল। পেঁপে গাছ কেটে দিয়ে চলে যাওয়ার সময় তারা দেখতে পাই যে, উক্ত বিবাদী সহ অজ্ঞাতনামা ১৪/১৫ জন হাতে হাসুয়া নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে চলে যায়। শুধুমাত্র বিবাদীকেই তাহারা চিনতে পেরেছে। ইহাতে আমাদের প্রায় আনুমানিক- ২০,০০,০০০/- (বিশ লক্ষ) টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হইয়াছে। ঘটনার পর হইতে আমার পিতা অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাড়িতে আছে।

এবিষয়ে ভুক্তভোগির ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মানিক বলেন, এই ঘটনায় আমার পিতা চরম কষ্টে অসুস্থ হয়ে পরেছে। এমন জঘন্যতম কাজের জন্য তার বিরুদ্ধে আমি দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমাদের প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এবিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, সরজমিনে তদন্ত পূর্বক ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Tag :
About Author Information

MD Abdulla Haq

চুয়াডাঙ্গায় প্রায় কোটি টাকার স্বর্ণসহ দর্শনার তাছলিমা আটক

দামুড়হুদায় ৪ বিঘা জমির ধরন্ত পেঁপে গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে

Update Time : ১১:২২:৩০ অপরাহ্ন, সোমবার, ১২ জুন ২০২৩

দামুড়হুদা উপজেলার পরানপুর মাঠে ৪ বিঘা জমির ধরন্ত ফুলন্ত পেঁপে গাছ কেটে দেওয়ার অভিযোগ উঠছে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার উক্ত নতুন গ্রামের মো: আমির বিশ্বাস এর ছেলে জাকির হোসেনের বিরুদ্ধে।

আজ রবিবার ভোর ৫টার দিকে ভুক্তভোগী কৃষক তার জমিতে গিয়ে দেখে জমির সব পেঁপে গাছ কেটে দিয়েছে। ভুক্তভোগী কৃষক হলেন দামুড়হুদা উপজেলার হাউলী ইউনিয়নের জয়রামপুর কলনীপাড়ার মৃত আবুল কাশেম এর ছেলে রবিউল ইসলাম বাবলু। এবিষয়ে তার ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মানিক দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে মো: জাকির হোসেন (৪২) পিতা: মো: আমির বিশ্বাস, গ্রাম উক্ত নতুনপাড়া, থানা ও জেলা চুয়াডাঙ্গা উক্ত বিবাদীর নিকট হইতে আমার পিতা মোঃ রবিউল ইসলাম বাবলু বিগত অনুমান ০৬ মাস পূর্বে ১৪,০০,০০০/-(চৌদ্দ লক্ষ) টাকার বিনিময়ে ০৫ বিঘা পেঁপে বাগান সহ লীজ গ্রহণ করি। টাকা ফেরত প্রদান করিলে সে তাহার জমি আমাদের নিকট হইতে ফেরত নিবে। কিন্ত হঠাৎ করে সে চুক্তিনামা থেকে আরও তিন লক্ষ টাকা বেশি দাবী করছে। আমার পিতা দিতে অস্বীকৃত জানাইলে সে আমাদের সামনে বলে টাকা না দিলে পেঁপে বাগান কেটে দেবো এবং বিভিন্ন স্থানে বলে বেড়ায় পেঁপে বাগান কেটে দেবো।

এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ইং ১১/০৬/২০২৩ তারিখ ভোর অনুমান ০৬:৩০ ঘটিকার সময়ে আমার পিতা উক্ত পেঁপে বাগানে গেলে দেখিতে পাই যে ০৪ বিঘা পেঁপে গাছ কেটে দেয়। আমার পেঁপে গাছগুলিতে ধরন্ত ফল ছিল। এমতাবস্থায় আমার পিতা খোজ খবর নিয়ে জানতে পারে ভোরবেলা মর্নিং ওয়ার্কে স্বাক্ষী ১। শিমুল হাসান, পিং-আঃ জলিল, ২। মোঃ রাশেদ আহম্মেদ সজিব, পিং-মুজিবুল হক (আর্মি), ৩। মোঃ রাজু, পিং-কালাম হোসেন, সর্ব সাং-দর্শনা (থানাপাড়া), উপজেলা-দামুড়হুদা, থানা-দর্শনা, জেলা-চুয়াডাঙ্গাগণ রাস্তায় হাটছিল। পেঁপে গাছ কেটে দিয়ে চলে যাওয়ার সময় তারা দেখতে পাই যে, উক্ত বিবাদী সহ অজ্ঞাতনামা ১৪/১৫ জন হাতে হাসুয়া নিয়ে বাড়ির উদ্দেশ্যে চলে যায়। শুধুমাত্র বিবাদীকেই তাহারা চিনতে পেরেছে। ইহাতে আমাদের প্রায় আনুমানিক- ২০,০০,০০০/- (বিশ লক্ষ) টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হইয়াছে। ঘটনার পর হইতে আমার পিতা অসুস্থ হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাড়িতে আছে।

এবিষয়ে ভুক্তভোগির ছেলে জাহাঙ্গীর আলম মানিক বলেন, এই ঘটনায় আমার পিতা চরম কষ্টে অসুস্থ হয়ে পরেছে। এমন জঘন্যতম কাজের জন্য তার বিরুদ্ধে আমি দামুড়হুদা মডেল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছি। আমাদের প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।

এবিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, সরজমিনে তদন্ত পূর্বক ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।