১১:৪০ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

আলমডাঙ্গায় ফুটন্ত গরম ভাত ছয় বছরের ভাতিজার মাথায় ঢেলে দেওয়ার অভিযোগে চাচা আব্দুর রশীদ  গ্রেফতার

  • Update Time : ১০:৫০:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১
  • ৩৮ Time View

 

 

 

হাফিজুর রহমান :চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় ফুটন্ত গরম ভাত ছয় বছরের ভাতিজার মাথায় ঢেলে দেওয়ার অভিযোগে চাচা আব্দুর রশীদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

 

এর আগে শিশুটির মা রোমানা খাতুন বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় একটি মামলা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির।

 

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ‘ঘুম ভেঙে দেওয়ায় ফুটন্ত ভাতের পাতিল ভাতিজার মাথায় ঢাললেন চাচা’ শিরোনামে ঢাকা পোস্টে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এবং এছাড়া বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পরে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চাচাকে গ্রেফতার করে

 

গ্রেফতার আব্দুর রশীদ আলমডাঙ্গা উপজেলায় ভাংবাড়িয়া গ্রামের মোল্লাপাড়ার ইবাদত মন্ডলের ছেলে।

 

আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে শিশুটির মা বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করেছেন। এরপরই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আব্দুর রশীদকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

 

উল্লেখ্য, গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় পূর্ববিরোধের জের ধরে ফুটন্ত গরম ভাতের পাতিল ছয় বছরের ভাতিজা রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে শিশুটির ঘাড়, কানসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়। ঘটনার পর রাব্বিকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন পরিবারের সদস্যরা। বর্তমানে শিশুটি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 

রাব্বির মা রোমানা খাতুন বলেন, আমার স্বামী ছয় বছর ধরে মালয়েশিয়ায় আছেন। রাব্বির চাচার সঙ্গে পারিবারিক ছোটখাটো বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার সকালে রাব্বি বাড়িতে খেলছিল। এ সময় পাশের একটি কক্ষে রাব্বির চাচা ঘুমাচ্ছিলেন। রাব্বির চিৎকারে তার ঘুম ভেঙে যায়। সঙ্গে সঙ্গে চুলার ওপর থেকে ফুটন্ত ভাতের পাতিল নিয়ে এসে রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে তার শরীর ঝলসে যায়। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।

Tag :
জনপ্রিয়

চুয়াডাঙ্গায় ফ্রি হস্তশিল্প প্রশিক্ষণ চলমান

আলমডাঙ্গায় ফুটন্ত গরম ভাত ছয় বছরের ভাতিজার মাথায় ঢেলে দেওয়ার অভিযোগে চাচা আব্দুর রশীদ  গ্রেফতার

Update Time : ১০:৫০:১৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৩ এপ্রিল ২০২১

 

 

 

হাফিজুর রহমান :চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় ফুটন্ত গরম ভাত ছয় বছরের ভাতিজার মাথায় ঢেলে দেওয়ার অভিযোগে চাচা আব্দুর রশীদকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) দুপুর ১টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

 

এর আগে শিশুটির মা রোমানা খাতুন বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় একটি মামলা করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির।

 

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) দিবাগত রাতে ‘ঘুম ভেঙে দেওয়ায় ফুটন্ত ভাতের পাতিল ভাতিজার মাথায় ঢাললেন চাচা’ শিরোনামে ঢাকা পোস্টে একটি সংবাদ প্রকাশিত হয়। এবং এছাড়া বিভিন্ন অনলাইন পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়।

পরে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত চাচাকে গ্রেফতার করে

 

গ্রেফতার আব্দুর রশীদ আলমডাঙ্গা উপজেলায় ভাংবাড়িয়া গ্রামের মোল্লাপাড়ার ইবাদত মন্ডলের ছেলে।

 

আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলমগীর কবির বলেন, এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে শিশুটির মা বাদী হয়ে আলমডাঙ্গা থানায় মামলা করেছেন। এরপরই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আব্দুর রশীদকে নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

 

উল্লেখ্য, গত সোমবার (১৯ এপ্রিল) চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় পূর্ববিরোধের জের ধরে ফুটন্ত গরম ভাতের পাতিল ছয় বছরের ভাতিজা রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে শিশুটির ঘাড়, কানসহ শরীরের বিভিন্ন স্থান ঝলসে যায়। ঘটনার পর রাব্বিকে উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেওয়া হয়। অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) সকালে তাকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন পরিবারের সদস্যরা। বর্তমানে শিশুটি সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 

রাব্বির মা রোমানা খাতুন বলেন, আমার স্বামী ছয় বছর ধরে মালয়েশিয়ায় আছেন। রাব্বির চাচার সঙ্গে পারিবারিক ছোটখাটো বিষয়ে বিরোধ চলে আসছিল। সোমবার সকালে রাব্বি বাড়িতে খেলছিল। এ সময় পাশের একটি কক্ষে রাব্বির চাচা ঘুমাচ্ছিলেন। রাব্বির চিৎকারে তার ঘুম ভেঙে যায়। সঙ্গে সঙ্গে চুলার ওপর থেকে ফুটন্ত ভাতের পাতিল নিয়ে এসে রাব্বির মাথায় ঢেলে দেন চাচা আব্দুর রশীদ। এতে তার শরীর ঝলসে যায়। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।