১০:৫১ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২১ এপ্রিল ২০২৪, ৮ বৈশাখ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা বাজি কালে মুন্নি আক্তার সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ

  • Update Time : ১০:১০:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০
  • ৮৭ Time View

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা বাজি কালে মুন্নি আক্তার সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ

 

মো: এনামুল হক স্টাফ রিপোর্টার গাজীপুর

কাপাসিয়ায় সাংবাদিক পরিচয়েচাঁদাবাজি
কালে মুন্নি আক্তারসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার (১৪ডিসেম্বর) বিকেলে জনতা তিনজনকে আটক করে পুলিশ সোপর্দ করেন।

আটককৃতরা হলো- যশোর জেলার কোতায়ালী থানার শেখ হাটির মনির হোসেনর স্ত্রী মুনি আক্তার, চুয়াডাঙ্গা সদর আদর্শ পাড়ার মাসুদ রানা রাব্বি ও গাজীপুর সদর থানার জোরপুকুর পাড় এলাকার বর্ষা কিরণ।

এ ঘটনায় মিষ্টির দোকানদার বিমল কুমার বাদী হয়ে কাপাসিয়া থানায় ওই তিনজনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা করেছে।

মিষ্টি দোকানী বিমল কুমার ও পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেলে কাপাসিয়া বাস স্ট্যান্ড এলাকায় ‘ভাই ভাই মিষ্টান ভান্ডারে’ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি রাখার অভিযোগ এনে দোকানদার বিমলের কাছে সাংবাদিক পরিচয়ে দুইজন ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে এবং তাদের সঙ্গীয় অপর দুই নারী কে ডাকতে থাকে। এ সময় আশপাশের দোকানীরা এসে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে সন্দেহ হয়। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল এসে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে যান।

পুলিশ তল্লাশি করে তাদের কাছে একাধিক পত্রিকার পরিচয় পত্র পায় এবং সংশ্লিষ্ট পত্রিকা অফিস ফোন দিয়ে দুই জনের পরিচয়পত্র ভুয়া বলে নিশ্চিত হয়। পরে মিষ্টির দোকানী বিমল বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযাগ এনে মামলা করেন। মুন্নি আক্তার গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি পারিজাত এলাকায় পারশ আলী রোড এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে দীর্ঘদিন ধরে ভুয়া “এস”টিভির সাংবাদিক পরিচয়ে চলতো। কাপাসিয়া থানার ওসি মো. আলম চাঁদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা হয়েছে ।

Tag :
জনপ্রিয়

চুয়াডাঙ্গায় ফ্রি হস্তশিল্প প্রশিক্ষণ চলমান

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা বাজি কালে মুন্নি আক্তার সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ

Update Time : ১০:১০:৪১ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৫ ডিসেম্বর ২০২০

সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদা বাজি কালে মুন্নি আক্তার সহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ

 

মো: এনামুল হক স্টাফ রিপোর্টার গাজীপুর

কাপাসিয়ায় সাংবাদিক পরিচয়েচাঁদাবাজি
কালে মুন্নি আক্তারসহ তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।
সোমবার (১৪ডিসেম্বর) বিকেলে জনতা তিনজনকে আটক করে পুলিশ সোপর্দ করেন।

আটককৃতরা হলো- যশোর জেলার কোতায়ালী থানার শেখ হাটির মনির হোসেনর স্ত্রী মুনি আক্তার, চুয়াডাঙ্গা সদর আদর্শ পাড়ার মাসুদ রানা রাব্বি ও গাজীপুর সদর থানার জোরপুকুর পাড় এলাকার বর্ষা কিরণ।

এ ঘটনায় মিষ্টির দোকানদার বিমল কুমার বাদী হয়ে কাপাসিয়া থানায় ওই তিনজনের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা করেছে।

মিষ্টি দোকানী বিমল কুমার ও পুলিশ জানায়, সোমবার বিকেলে কাপাসিয়া বাস স্ট্যান্ড এলাকায় ‘ভাই ভাই মিষ্টান ভান্ডারে’ অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে মিষ্টি রাখার অভিযোগ এনে দোকানদার বিমলের কাছে সাংবাদিক পরিচয়ে দুইজন ৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে এবং তাদের সঙ্গীয় অপর দুই নারী কে ডাকতে থাকে। এ সময় আশপাশের দোকানীরা এসে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করলে সন্দেহ হয়। পরে থানা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ ঘটনাস্থল এসে তাদেরকে আটক করে থানায় নিয়ে যান।

পুলিশ তল্লাশি করে তাদের কাছে একাধিক পত্রিকার পরিচয় পত্র পায় এবং সংশ্লিষ্ট পত্রিকা অফিস ফোন দিয়ে দুই জনের পরিচয়পত্র ভুয়া বলে নিশ্চিত হয়। পরে মিষ্টির দোকানী বিমল বাদী হয়ে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযাগ এনে মামলা করেন। মুন্নি আক্তার গাজীপুর মহানগরীর কোনাবাড়ি পারিজাত এলাকায় পারশ আলী রোড এলাকায় বাসা ভাড়া থেকে দীর্ঘদিন ধরে ভুয়া “এস”টিভির সাংবাদিক পরিচয়ে চলতো। কাপাসিয়া থানার ওসি মো. আলম চাঁদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগে মামলা হয়েছে ।